moticur-laddu-babirci.com

মিষ্টি জাতীয় খাবারের মধ্যে লাড্ডু ( laddu ) যেমন জনপ্রিয়, তেমনি লাড্ডুর ( laddu ) মধ্যে মতিচুর । ছোট বড় সকলের পছন্দের তালিকার শীর্ষে এই মতিচুর লাড্ডু । এজন্য আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি এই জনপ্রিয় মতিচুর লাড্ডুর রেসিপি । খুবই সাধারন এবং পারফেক্ট এই রেসিপির জন্য যা প্রয়োজন তার সবকিছুই আপনার হাতের নাগালে পাবেন।

মতিচুর লাড্ডুর উপকরণ:-

  • বেসন-২ কাপ
  • পানি-২+৩/৪ কাপ
  • ফুঁড কালার-হলুদ
  • কেওড়া জল-১/২ চা চামচ
  • মিহি দানার জন্য ছোট ছিদ্র যুক্ত ছাঁচ (ভাজার জন্য তেল মিহিদানা ডুবো তেলে ভাজার জন্য তেলের পরিমানটা একটু বেশীনিতে হবে)

সিরার জন্য:

  • চিনি-২ কাপ
  • পানি-১ কাপ

প্রস্তুত প্রনালী:-

প্রথমে একটি বাটিতে বেসন চালনি দিয়ে চেলে নিতে হবে। যাতে করে বেসনের লাম্পস গুলো ভেঙ্গে যায়।এখন অল্প অল্প করে নরমাল পানি দিয়ে একটা পাতলা বেটার তৈরী করতে নিতে হবে। এরপর বেটারটা ১৫ মিনিট রেস্টে রাখতে হবে।

এরপর একটা পাত্রে পরিমান মত তেল দিয়ে তেল মিডিয়াম গরম করে নিতে হবে। এক ফোটা বেটার তেলের মধ্য দিয়ে দেখতে হবে। যদি দানাটা সাথে  সাথে তেলের উপর ভেসে উঠে তাহলে বুঝতে হবে তেল গরম  হয়েছে।

এরপর তেলের ৬ থেকে ৭ ইন্চি উপর থেকে ছাঁচ দিয়ে সম্পূ্রন বেটার দিয়ে মিহিদানা গুলো ভেজে নিতে হবে।বেশী লাল করে ভাজা যাবে না।

মতিচুর লাড্ডু | baburci.com

সিরার জন্য:

২ কাপ চিনি আর ১ কাপ পানি দিয়ে তার মধ্য ১/২ চা চামচ এর মত লেবুর রস অথবা লেবুর পাতলা একটা স্লাইচ দিয়ে সিরাটা তৈরী করে নিতে হবে। লেবু দেওয়ার জন্য সিরাটা জমাট বেধে যাবে না।

হাই হিটে সিরাটা জ্বাল করে একটা বলগ তুলে নিতে হবে।এরপর চুলা একেবারে লো হিটে দিয়ে একটু  সিরাটা ঠান্ডা হওয়ার পর এর মধ্য ফুড কালার এবং সুগন্ধ এর জন্য সামান্য কেওড়ার জল দিয়ে একটু নাড়া দিয়ে মিহিদানা গুলো সিরার মধ্য দিয়ে দিতে হবে।(কেওড়ার জল অপশনাল)

মিহিদানা ভালভাবে নেড়ে ঢেকে দিয়ে একেবারে কম আঁচে ১০ মিনিট রান্না করতে হবে।এরপর চুলা বন্ধ করে ১ ঘন্টা রেখে দিতে হবে।১ ঘন্টা পর ঢাকনা খুলে আলতো করে একটু নেড়ে একটা পাত্রে ঢেলে লাড্ডুর মত শেফ দিতে হবে।

ব্যাস, হয়ে গেল মজার মতিচুর লাড্ডু। এবার আপনি আপনার পছন্দ মত সাজিয়ে পরিবেশন করবেন।👌

আপনার বানানো  মতিচুর লাড্ডু  কেমন হয়েছে কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না কিন্তু।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here